প্রচ্ছদ্
আমাদের কথা

অন্যান্য বারের মতোই এবারও শরতে উৎসবের সূচনা ঈদ দিয়ে হয়েছিলো। একের পর এক উৎসব এ সময় সারা ভারতবর্ষকে মাতিয়ে রাখে আলোয়, রঙে। আলোর পাশাপাশি চিরকালীন কিছু অন্ধকার। যে অন্ধকারের কোনও সমাধান নেই। এক পুরুষে নয়। কখনও কখনও কোনও প্রজন্মেই নয়। সেইসব আলো-আঁধারীর চিরকালীন যাপনকে বাদ দিয়ে এবার এক অন্য আগুন মাতিয়ে রাখলো আমাদের শরৎ, হেমন্তকে। প্রজ্ব্বলিত শিখার সেই আগুনে পুড়ে যেতে লাগলো আমাদের কূপমণ্ডুকতা, পরস্পরকে টেনে নামিয়ে আনার – সামনে ভালো পিছনে কালো বলার  বাঙালিয়ানা। ঝকঝকে সতেজ মানুষেরা হাতে হাত রেখে ভেঙে দিচ্ছে দূষিত শিরদাঁড়া, সাহস ছড়িয়ে দিচ্ছে সমস্ত ভয়ের গোপন অলিন্দে। দিল্লি, মুম্বাই, ব্যাঙ্গালোর এবং অন্যান্য শহরের, গ্রামের মানুষেরা মিলিত হয়েছে এক সূর্যের নিচে। যাদবপুর দেখিয়ে দিয়েছে যে যে কোনও একটি বিষয়কে কেন্দ্র করেই একটি আন্দোলন শুরু হতে পারে। মনে করিয়ে দিয়েছে আমাদের যে গলা তুলে প্রতিবাদ করতে আইনের সাহায্য লাগে না। কলজের জোর লাগে শুধু। বাঙালির কলিজায় আগুন জ্বলতে থাকুক – চিরকালীন এই আগুনের নাম হোককলরব। আমাদের এবারের সংখ্যা – হেমন্ত ১৪২১ – তাকেই উৎসর্গ করলাম।




যোগাযোগ

বুকপকেট খুব খারাপ লেগেছে? কিংবা মনে হয়েছে বুকপকেট  অন্যরকম হলে ভালো হত? অথবা হয়ত মনে হচ্ছে আপনার লেখাটা নেই বলে সার্থক হয়নি এই ওয়েবজিন?  আপনার লেখা, আঁকা, ফটোগ্রাফ, মতামত, মুগ্ধতা পাঠিয়ে দিন আমাদের। অনধিক ৩৫০০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোড অথবা বিজয় তে টাইপ করে ওয়ার্ড বা টেক্সট ফাইল ইমেল করবেন -

editor@bookpocket.org অথবা editor.bookpocket@gmail.com এ।

———————————————————–

টিম বুকপকেট

 

প্রধান সম্পাদক : অমর মিত্র

কার্যনির্বাহী সম্পাদক: দোলনচাঁপা চক্রবর্তী

সহযোগী সম্পাদকশমীক ঘোষ

অলংকরণ: স্বাগতা বসু পায়োঁর

কারিগরি সহায়তা : সায়ন চক্রবর্তী

 প্রচ্ছদ: শঙ্খদীপ ভট্টাচার্য